Valencia furniture – Valencia Furnishing

ফার্নিচার কেনার

 আগে জেনে নিন কিছু বিষয়

চকচকে বাহারি ডিজাইনের ফার্নিচার কে না পছন্দ করে?  নিত্য নতুন ডিজাইনের সাথে সাথে চলছে জমকালে চোখ ধাঁধানো সব রঙের প্রদর্শনী। যা দেখে ক্রেতারা সহজেই নিম্নমানের ফার্নিচারকে বেশি দামে কিনে ফেলে।চকচক করলেই সোনা হয় না জেনেও বারবার চতুর বিক্রেতার চাতুর্যে সার্কাসের দর্শকের মতো যাদুকরের ভোজবাজিতে সম্মোহিত হয়ে প্রতারিত হয় বারবার। চতুর বিক্রেতার এমন ভোজবাজি এড়াতে ফার্নিচার বিষয়ক কিছু সচেতনতা অবলম্বন করা যাতে পারেঃ


১. ফার্নিচার কেনার আগে দেখে নিন ফার্নিচার অসাড় কাঠ থেকে মুক্ত কিনা। অসাড় কাঠ ঘুণ পোকার আক্রমণ থেকে সহজে মুক্ত থাকতে পারে না। সেক্ষেত্রে রাতে ঘুমানর জন্য একটি খাট কিনেও ঘুণ পোকার অত্যাচারে আপনার রাতের ঘুমে ব্যাঘাত ঘটতে পারে।


২. ঘন জোড়া দেখেও কাঠের মান বুঝা যায়। যে সকল ফার্নিচারে ঘন ঘন জোড়া দেয়া হয় বুঝা যায় তা ছোট কাঠ খন্ড থেকে বানানো হয়েছে। বড় কাঠ খন্ডে ঘন ঘন জোড়া দেয়ার প্রয়োজন হয় না। আর বড় কাঠ খন্ড ছোট কাঠ খন্ড থেকে অধিক দঢ় ও টেকসই হয়।


৩. সিজনিং বা টেকসইকরণ পদ্ধতি কাঠের গুণগত মান ও স্থায়িত্ব বৃদ্ধি করে। কাঠের আয়ুষ্কাল বাড়ায় এবং ক্ষতিকর কীটপতঙ্গ ও অণুজীবের আক্রমণ থেকে কাঠকে রক্ষা করে। সিজনিং পদ্ধতির মাধ্যমে কাঠের আদ্রতা অপসারণ করা হয় ফলে দীর্ঘ দিন পরেও কাঠের আকৃতি অপরিবর্তিত থাকে।


এসকল বিষয়াদি অবশ্যই ফার্নিচার হাফ পলিশ করার পূর্বে দেখে নিতে হয়।

আর তাই Valencia Furnishing Ltd. আপনাদেরকে শো রুম এর পাশাপাশি কারখানায় আমন্ত্রণ জানাচ্ছে।

নান্দনিক ডিজাইনের পাশাপাশি ফারনিচারেরব মান যাচাইয়ের সুযোগ দিচ্ছে Valencia Furnishing Ltd.

যে কোন সময় বিক্রয়োত্তর সেবা ।

ফ্রি ইন্সটলেশন।